ksrm

মহানগর সময় আবরার হত্যা: মোয়াজ-শামিম ৫ দিনের রিমান্ডে

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার মোয়াজ ও শামিম বিল্লাহকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। রোববার (১৩ অক্টোবর) ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ এ আদেশ দেন।
এর আগে মোয়াজ ও শামিম বিল্লাহকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে গোয়েন্দা পুলিশ।
এ সময় রিমান্ডের বিরোধিতা করে জামিনের আবেদন জানান আসামিপক্ষের আইনজীবীরা। আর মামালার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে রিমান্ডের আবেদন জানান রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী। আদালত উভয়পক্ষের শুনানি শেষে প্রত্যেককে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এদিকে, দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র ও শিক্ষক রাজনীতি বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে।
গত ৬ অক্টোবর দিবাগত রাতে বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭ ব্যাচ) ছাত্র ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। পরে ৭ অক্টোবর হলের সিঁড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করলে আদালত পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
আবরার হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে সাতক্ষীরা থেকে শামীম বিল্লাহ  (২০) বুয়েট শিক্ষার্থীকে আটক করে ডিবি পুলিশ।
শ্যামনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আনিসুর রহমান মোল্লা জানান,  শুক্রবার বিকালে ঢাকা থেকে আসা ডিএমপির গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে একটি দল শ্যামনগর থানা পুলিশের সহযোগিতায় শামিম বিল্লাহকে তার বাড়ি শ্যামনগর উপজেলার ভুরুলিয়া ইউনিয়নের ইছাপুর গ্রাম থেকে আটক করে। শামীমের বাবার নাম আমিনুর রহমান ওরফে বাবলু সরদার।
আটকের পরপরই শামিম বিল্লাহকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। শামিম বিল্লাহ বুয়েটের নেভাল অ্যান্ড আর্কিটেকচার বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র।
এর আগে সকালে আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি মাজেদুল ইসলামকে সিলেট থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম বিভাগ তাকে গ্রেপ্তার করে বলে জানানো হয়।
গত রবিবার রাতে আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। সোমবার (৭ অক্টোবর) ভোরে শের-ই-বাংলা হলের প্রথম ও দ্বিতীয় তলার সিঁড়ির মধ্যবর্তী জায়গায় আবরারের নিথর দেহ পাওয়া যায়। তার শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন ছিল। জানা যায়, ওই রাতেই হলটির ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে পেটান বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতারা।
পরদিন সোমবার (৭ অক্টোবর) রাজধানীর চকবাজার থানায় মামলা দায়ের করেন আবরারের বাবা।
আবরার ফাহাদ বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (ইইই) বিভাগের লেভেল-২ এর টার্ম ১ এর ছাত্র ছিলেন। তিনি শের-ই-বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন। তার বাড়ি কুষ্টিয়া শহরে। কুষ্টিয়া জেলা স্কুলে তিনি স্কুলজীবন শেষ করে নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন।
 
 
 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop