ksrm

খেলার সময়কায়েসের ডাবল সেঞ্চুরিতেও জয় পেল না খুলনা

সময় সংবাদ

fb tw
ইমরুল কায়েসের ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরির পরেও ড্র হয়েছে প্রথম স্তরের রংপুর আর খুলনা বিভাগের মধ্যকার ম্যাচ। একই ফলাফল ছিলো প্রথম স্তরের ঢাকা আর রাজশাহী বিভাগের ম্যাচেও। তবে দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে দাপটে জয় পেয়েছে বরিশাল বিভাগ। তানভীর-মনিরের বোলিং তাণ্ডবে, সিলেটকে তারা হারিয়েছে ইনিংস ও ১৩ রানের ব্যবধানে। বিপরীতে অমিমাংসিত থেকেছে দ্বিতীয় স্তরের ঢাকা মেট্রো আর চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যকার ম্যাচ।
শেষ হলো জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম রাউন্ডের খেলা। তবে, চার ম্যাচের তিনটিই শেষ হয়েছে অমীমাংসীতভাবে। এরইমধ্যে একটি হলো খুলনায় হয়ে যাওয়া রংপুর ও খুলনা বিভাগের মধ্যকার প্রথম স্তরের ম্যাচ। এদিন ইমরুল কায়েস খুলনার হয়ে গড়েছেন নিজের ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি। তারপরও রংপুরের বিপক্ষে ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় খুলনাকে।
ফতুলায় প্রথম স্তরের আরেক ম্যাচে, ঢাকা বিভাগের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে সর্বোচ্চ ৮৮ রান তুলে দলকে ২৫৪ রানের স্কোর এনে দেন তাইবুর। আর বাকিরা কেবল আসা যাওয়ার মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে। রাজশাহীর হয়ে তাইজুল দ্বিতীয় ইনিংসে তুলে নেন ৫ উইকেট। যদিও প্রতিপক্ষকে ১০৫ রান দিয়েছেন এই স্পিনার। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে রাজশাহী জহুরুলের ৪০ ও মুশফিকের ২১ রানে ভর করে ৫ উইকেটে ১০৬ রান তুলতে সক্ষম হয়। আর তাতেই ফলাফল দাঁড়ায় ড্র।
এদিকে, রাজশাহীতে দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে বৃথা যায়নি বরিশালের তানভীর-মনিরদের পরিশ্রম। প্রথম ইনিংসে রাব্বি একাই ৬ উইকেট তুলে নিয়ে সিলেটকে বেধে দিয়েছিলো মাত্র ৮৬ রানে। এবার দ্বিতীয় ইনিংসেও বোলারদের দাপট দেখেছে সিলেট। বরিশালের বোলারদের দাপটে মাত্র ১৩২ রানে গুটিয়ে গেছে তারা। ফলে বরিশাল জিতেছে ইনিংস ও ১৩ রানের ব্যবধানে। সিলেটের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৫ রান করে অপরাজিত ছিলেন জাকের। ৩৫ রান করেছেন ওপেনার ইমতিয়াজ। বরিশালের তানভীর ৪টি ও ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন মনির।
এছাড়া, ঢাকায় জাতীয় ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে ড্র করেছে চট্টগ্রাম ও ঢাকা মেট্রোও। আগের দিনের ৭ উইকেটে ৩৪৯ রান নিয়ে ব্যাট করতে নামা ঢাকা মেট্রো ৩৫৪ রান করে অলআউট হলে, দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামে চট্টগ্রাম। এদিনও তামিম ইকবাল বড় ইনিংস খেলতে পারেন নি। আউট হন ৪৬ রানে। তবে মাসুম অপরাজিত ছিলেন ৬১ রানে। এছাড় পিনাকের ৫৭ ও তাসামুল করেন ৫৩ রান। শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেটে ২২৭ রানের সংগ্রহ পায় চট্টগ্রাম। মাহমুদুল্লাহ ২৫ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop