ksrm

আন্তর্জাতিক সময়সৌদি-ইরান সংঘাত থামাতে চেষ্টা চালিয়ে যাবো: ইমরান খান

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি অ্যারামকোর স্থাপনার হামলায় ইরান জড়িত থাকলে অবশ্যই নিন্দা জানানো হবে বলে জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।
এক সাক্ষাৎকারে পুতিন বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে এক দেশের মিত্র হতে অন্যদেশের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে চায় না রাশিয়া। রিয়াদ সফরের আগ মুহূর্তে দেয়া ওই সাক্ষাতকারে মধ্যপ্রাচ্যে সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন তিনি। এদিকে, ইরানের সঙ্গে সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্রের আলোচনা সহজ করতে সব চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তেহরান সফররত পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।
ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র এবং সৌদি আরবের তীব্র উত্তেজনার মধ্যেই রোববার( ১৩ অক্টোবর)  তেহরান সফরে যান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। মূলত দেশ দুটির সঙ্গে ইরানের আলোচনার পরিবেশ তৈরি করতেই ইমরান খানের এ সফর। গেল মাসে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের পার্শ্ববৈঠকে রিয়াদ ও তেহরানের মধ্যে আলোচনার জন্য তাকে মধ্যস্থতার আহ্বান জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প। ওই আহ্বানের প্রেক্ষিতেই ইরান সফরে গেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী।
সফরের প্রথমদিন ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। দুই নেতার বৈঠকে মধ্যপ্রাচ্য ইস্যু ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। পরে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে আলোচনা ফলপ্রস্যু হয়েছে জানিয়ে ইমরান খান বলেন, সৌদি আরব এবং ইরানের মধ্যে আলোচনার জন্য সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাবে পাকিস্তান।

ইমরান খান বলেন, 'প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আমাকে আলোচনার সুযোগ তৈরির আহ্বান জানিয়েছিলেন। আর সে বিষয়েই প্রেসিডেন্ট রুহানির সঙ্গে আমার বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। আমি জানি, বিষয়টি সমাধান করা খুবই কঠিন। তারপরও আমি চেষ্টা চালিয়ে যাবো। প্রতিবেশী দেশ হিসেবে ইরানের সঙ্গে আমাদের অনেক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় জড়িয়ে আছে। তেমনি সৌদি আরব পাকিস্তানের কাছে বন্ধু দেশ। সৌদি আরব এবং ইরান দুই মুসলিম দেশের মধ্যে কোনো রকমে সংঘাত থাকুক পাকিস্তান তা চায় না। তেহরান এবং রিয়াদের মধ্যে আলোচনার বিষয়ে নিতে পেরে আমি ব্যক্তিগতভাবে খুবই খুশি।'
এসময় পাক প্রধানমন্ত্রীর এ চেষ্টাকে স্বাগত জানিয়ে ইরানি প্রেসিডেন্ট বলেন, মধ্যপ্রাচ্য সঙ্কট সমাধানে যেকোনো প্রচেষ্টাকেই সাদরে গ্রহণ করবে তেহরান। যুক্তরাষ্টকে আলোচনায় আলোচনায় বসতে হলে সবার আগে পরমাণু চুক্তিতে ফিরিয়ে আসতে হবে বলেও জানান রুহানি। এ সময় হাসান রুহানি বলেন, 'পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে আমরা একমত হয়েছি যে, আঞ্চলিক ইস্যুগুলো কূটনীতিক এবং সংলাপের মাধ্যমে সমাধান হওয়া উচিত। ইরানের সঙ্গে আলোচনার টেবিলে বসতে হলে যুক্তরাষ্ট্রকে সবার আগে অবরোধ প্রত্যাহার এবং পরমাণু চুক্তিতে ফিরিয়ে আসতে হবে। আমাদের ট্যাঙ্কারে যারাই হামলা চালিয়ে থাকুক না কেন কোনোভাবেই তাদের ছাড় দেয়া হবে না। আমরা তদন্ত করে যাচ্ছি। তদন্ত শেষ হলেই জানা যাবে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পেছনে করা জড়িত।'
এদিকে, গেলো সেপ্টেম্বর মাসে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি অ্যারামকোর দুটি স্থাপনায় ড্রোন হামলার ঘটনায় ইরান জড়িত নয় বলে রাশিয়াকে নিশ্চিত করেছে তেহরান। তেহরান অবহিত করেছে বলে জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop