ksrm

তথ্য প্রযুক্তির সময়কোটি টাকা বিনিয়োগ সহায়তা পেলো ১০ উদ্ভাবনী ভাবনা

কামাল শাহরিয়ার

fb tw
somoy
স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ দ্বিতীয় পর্বে, উদ্ভাবনী ভাবনা বাস্তবায়নে ১০ লাখ টাকা করে বিনোয়োগ সহায়তা পেলো দেশ সেরা ১০টি উদ্যোক্তা দল। বুধবার রাতে বিজয়ী তরুণদের হাতে ‘বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্রান্ট’ তুলে দেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক।
যে ১০টি স্টার্টআপ গ্রান্ট পেয়েছে সেগুলো হচ্ছে, ঝুপরি ডটকম, ভিশন আইটি, ওয়ার্ল্ড এক্সজাম্পল, ইলেকট্রিক স্কেটেবল অ্যান্ড ওয়াকেবল সু, এডুবট, অবসর, ডিজিটং, ক্রস রোড ইনিশিয়েটিভ, ব্ল্যাকবোর্ড এবং কগনিশন ডট এআই।
এরআগে গত ১০ অক্টোবর সাভারের শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটে শুরু হয় ‘ন্যাশনাল স্টার্টআপ ক্যাম্প’।  তিনদিনের ক্যাম্পে দেশের ৭৫টি উদ্যোক্তা দল অংশ নেয়। সেখান থেকে বাছাই করা হয় ৩০টি উদ্ভাবনী ভাবনা বা স্টার্টআপ।
পরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হওয়া ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড ইনোভেশন এক্সপোতে জাতীয় স্টার্টআপ ক্যাম্প থেকে আসা সেরা ৩০ স্টার্টআপকে নিয়ে শুরু হয় সেরা ১০ স্টার্টআপ নির্বাচনের পিচিং সেশন।পরে আইডিয়া প্রকল্পের বাছাই কমিটি চূড়ান্ত বাছাই কার্যক্রম সম্পন্ন করে।
‘আমার উদ্ভাবন, আমার স্বপ্ন’ শিরোনামে এ উদ্ভাবনী ভাবনা খোঁজার এ প্রতিযোগিতার আয়োজক সিআরআই, ইয়াং বাংলা ও আইসিটি ডিভিশনের আইডিয়া প্রকল্প। প্রথম পর্বে দেশজুড়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলায় এবার কলেজ ও মাদারাসা শিক্ষার্থীদের যুক্ত করা হয় স্টার্টআপ প্রতিযোগিতায়।
গত ৩ অক্টোবর বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মশালা ও পিচিং দিয়ে শেষ হয় উদ্ভাবনী ভাবনা ও উদ্যোক্তার খোঁজার এ প্রতিযোগিতার বিশ্ববিদ্যালয় ও ভেন্যুভিত্কি পর্ব। এরআগে, গত ১৫ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রীয় কর্মশালার মধ্য দিয়ে শুরু হয় শিক্ষার্থীদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ার এই প্লাটফর্মের দ্বিতীয় অধ্যায়।
এরপর সারাদেশের নির্ধারিত ভেন্যুতে চলে স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপের কর্মশালা ও পিচিং। কর্মশালায় শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রতিযোগিতা নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন আয়োজক সংস্থার প্রতিনিধি। আর পিচিং রাউন্ডে উদ্যোক্তারা তাদের উদ্ভাবনী ভাবনা তুলে ধরেন। পিচিং রাউন্ডে প্রতিটি ভেন্যু থেকে সর্বোচ্চ তিনটি দলকে জাতীয় ক্যাম্পের জন্য বাছাই করা হয়।
এদিকে, সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন-সিআরআই’র সমন্বয়ক তন্ময় আহমেদ সময় নিউজকে বলেন, শীর্ষ ৩০ এ থাকা অপর ২০ স্টার্টআপ রানারআপ হিসেবে আইডিয়া প্রকল্প থেকে গ্রুমিং ও বিশেষ প্রশিক্ষণ নেওয়ার সুযোগ পাবে। প্রশিক্ষণ শেষে স্টার্টআপগুলো প্রস্তুত হলে তাদের জন্যও অনুদান প্রদান করবে আইডিয়া প্রকল্প।
সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগের সঙ্গে প্রতিষ্ঠানিক শিক্ষাকে যুক্ত করার মধ্য দিয়ে জাতীয়ভাবে ইনোভেশন কালচার, স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম এবং এন্ট্রাপ্রেনরিয়াল সাপ্লাই চেইন গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ শুরু করে সরকারের আইসিটি বিভাগের ‘আইডিয়া’ প্রকল্প। ২০১৮ সালে 'উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প বা আইডিয়া প্রকল্প'টি চুক্তিবদ্ধ হয় সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) ও এর অঙ্গ সংগঠন ইয়াং বাংলার সঙ্গে।
ইয়াং বাংলা ইতিমধ্যে দেশের তরুণদের স্বপ্নের ও সবচেয়ে বড় প্লাটফর্ম হিসেবে দাঁড়িয়েছে। দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখা তরুণদের নিয়ে জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডসহ নানা কর্মসূচিতে দেশের তরুণদের যুক্ত করছে সংগঠনটি। আর ইয়াং বাংলার সেক্রেটারিয়েট সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন-সিআরআই গবেষণা সংস্থা হিসেবে দেশ-বিদেশে ব্যাপক সুনাম কুড়িয়েছে। সিআরআই আয়োজিত লেটস টক, পলিসি ক্যাফে আলোচনায় রয়েছে।

আরও পড়ুন

উদ্ভাবনী ভাবনার খোঁজে স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপের ‍দ্বিতীয় অধ্যায়স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ: জাতীয় ক্যাম্প বসছে ১০ অক্টোবর

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop