ksrm

খেলার সময়ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ ‘গোল্ডেন বুট’ নিয়ে দর্শকদের সামনে মেসি

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ ‘গোল্ডেন বুট’ নিয়ে দর্শকদের সামনে হাজির হলেন বার্সেলোনা তারকা লিওনেল মেসি। স্পেনে এই অনুষ্ঠানে মেসির স্ত্রী ও সন্তানদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন লুইস সুয়ারেজ, জর্ডি আলবা ও ক্লাব সভাপতি হোসে মারিয়া বার্তোমিউ। দারুণ এই অর্জনের পেছনে ক্লাব সতীর্থদের অবদানের কথা তুলে ধরেন এল.এম.টেন। ব্যক্তিগত অর্জনের পাশাপাশি কাতালানদের হয়ে আরো বেশি ট্রফি জিততে চান বলেও জানান মেসি।
হোক একটাই, তবুও এই জুতোটাই লাগবে। বাবার কীর্তি সম্পর্কে থিয়াগো আর মাতেও'র স্পষ্ট ধারণা হয়তো নেই। কিন্তু, এই গোল্ডেন শ্যু যে সম্মানের, সেটা হয়তো বুঝতে পেরেছে লিওনেল মেসির দুই পুত্র। বার্সেলোনার মঞ্চে পিতা-পুত্রের ভালোবাসা বিনিময়ের ক্ষণে সঙ্গী হন লিওর সহধর্মীণী অ্যান্তোনেলা রোকুজ্জোও।
ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে ২০১৮-১৯ মৌসুমটা রাঙিয়েছেন বার্সার আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। লা লিগায় ৩৪ ম্যাচে তার ৩৬ গোল ইউরোপীয় ঘরোয়া লিগে মৌসুমের সর্বোচ্চ। আর সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে গোলসংখ্যা ছিলো ৫১। গোল্ডেন বুট অ্যাওয়ার্ড জয়ের রেসে এলএমটেন পেছনে ফেলেছেন পিএসজির ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপ্পেকে।
আনুষ্ঠানিক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রাণোচ্ছ্বল মেসি। শুভক্ষণে পাশে পেয়েছেন শুভানুধ্যায়ীদেরও। সুয়ারেজ-আলবাদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন ক্লাব বার্সেলোনার সভাপতি হোসে মারিয়া বার্তোমিউ।
লিওনেল মেসি, ফুটবলার, বার্সেলোনা: আমি আবারো আমার পরিবার, ক্লাবের পরিচালক আর সুয়ারেজ ও জর্ডি আলবাকে এখানে উপস্থিত হবার জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই। এই পুরস্কারটা আসলে আমার সতীর্থদের। তাদের সহযোগিতা ছাড়া এমন অর্জন সম্ভব হতোনা কখনোই।
মেসির শোকেসে ট্রফির ছড়াছড়ি। এবারেরটি নিয়ে গোল্ডেন বুটের সংখ্যা ৬। ২০০৯-১০ মৌসুমে ইউরোপের সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়ে প্রথমবার এই ট্রফি জিতেছিলেন লিও। লিগে তার ব্যক্তিগত ৫০ গোলের রেকর্ডটা ২০১১-১২ মৌসুমের। ক্যারিয়ারে ১০ বার লা লিগার পাশাপাশি ৪ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জিতেছেন মেসি। তবে, এতো এতো অর্জনেও মেটেনি তৃষ্ণা।
লিওনেল মেসি, ফুটবলার, বার্সেলোনা: চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সবসময়ই বিশেষ। প্রতি মৌসুমেই এটা জিততে চাই আমরা। তবে, লা লিগার গুরুত্ব ভুলে গেলে চলবেনা। লা লিগার ভালো পারফরম্যান্স আমাদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ আর কোপা দেল রে'তেও ভালো খেলতে সাহায্য করে। বার্সেলোনার লক্ষ্য থাকে প্রতি মৌসুমে সম্ভাব্য সবকিছু জেতা।
ইনজুরির কারণে এ মৌসুমে এখনো চেনা ছন্দে ফিরতে পারেননি লিওনেল মেসি। তবে, ধীরে ধীরে গুছিয়ে উঠছেন। প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে স্বস্তির সময় ফুরিয়ে এসেছে। ছন্দে থাকা মেসি যে ভয়ঙ্কর এক ফুটবল শিল্পী।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop