ksrm

মহানগর সময়‘বালিশ কাণ্ডের মতো ঘটনায় দায় শুধু প্রকৌশলীদের নয়, মন্ত্রণালয়েরও’

সময় সংবাদ

fb tw
রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বালিশ কাণ্ডের মতো ঘটনার দায় যেমন প্রকৌশলীরা এড়াতে পারে না তেমনি মন্ত্রণালয়ও এর দায় এড়াতে পারে না বলে মনে করেন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের (আইইবি) প্রেসিডেন্ট এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর।
তিনি বলেন, বালিশ কাণ্ডের দায় শুধু প্রকৌশলীদের একার নয়, এ দায়ভার মন্ত্রণালয়েরও রয়েছে। বালিশ কাণ্ড ঘটার পর সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট (সিপিটিইউ) তাদের বক্তব্য জনগণের সামনে তুলে ধরেনি। তারা এ বিষয়টি জনগণের সামনে পরিষ্কার করেনি। তবে এ বালিশ কাণ্ডের মতো যেন আর কোনো ঘটনা ভবিষ্যতে না ঘটে সেদিকে প্রকৌশলীদের সঙ্গে মন্ত্রণালয়েরও কড়া নজর রাখতে হবে। এ সব ঘটনার জন্য যেন সরকারের কোনো ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
শনিবার (১৯ অক্টোবর) সকালে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি)-এর পুরকৌশল বিভাগের উদ্যোগে আইইবির কাউন্সিল হলে ‘সরকারি ক্রয় প্রক্রিয়ার বর্তমান অবস্থা : বাংলাদেশ প্রেক্ষিত’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
গোলটেবিল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন আইইবির পুরকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. হাবিবুর রহমান। অনুষ্ঠানে মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন আইইবির পুরকৌশল বিভাগের সম্পাদক প্রকৌশলী শেখ তাজুল ইসলাম তুহিন। এছাড়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. নুরুল হুদা, এলজিইডির প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মো. জসিম উদ্দিন, বিশ্বব্যাংকের প্রকিউরমেন্ট স্পেশালিস্ট প্রকৌশলী গোলাম ইয়াজদানী, এলজিইডির প্রকিউরমেন্ট ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুস সাত্তার, সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী মো. শরিফুল ইসলাম, ন্যাশনাল ট্রেইনার প্রকৌশলী সোনিয়া নওরিনসহ অন্যান্য প্রকিউরমেন্ট স্পেশালিস্টরা বক্তব্য দেন।
প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রকৌশলীরা দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। শেখ হাসিনা সুযোগ দিয়েছেন বলেই আমাদের প্রকৌশলীরা দেশের বড় বড় মেগাপ্রকল্প পরিচালনা করছেন। দেশের অনেক উন্নয়ন করছেন। তবে প্রকৌশলীদের আরও বেশি দক্ষতা প্রয়োজন। প্রকৌশলীরা যত বেশি দক্ষ হবে দেশের উন্নয়নের তারা তত বেশি ভূমিকা রাখতে পারবেন। তাই প্রকৌশলীদের দক্ষতার কোনো বিকল্প নেই।
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি দেয়ার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের আরও বেশি দক্ষ করে গড়ে তোলার পরামর্শ দিয়ে আইইবির প্রেসিডেন্ট বলেন, সামনে আইইবির ওয়াসিনটন একর্ড পেতে হবে। ওয়াসিনটন একর্ড পেলে আইইবির সদস্য প্রকৌশলীরা আন্তর্জাতিক মর্যাদা পাবে। ফলে আগামী দিনে যারা আইইবির সদস্য পদ নিতে আসবেন তারা দক্ষ না হলে হবে না।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop