ksrm

মহানগর সময়খবর এসেছে ক্যাসিনো থেকে নিয়মিত চাঁদা নিতেন মেনন: তথ্যমন্ত্রী

সময় সংবাদ

fb tw
নির্বাচন নিয়ে ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের বিরূপ মন্তব্য নিয়ে তোলপাড় রাজনৈতিক অঙ্গন। খোদ ১৪ দলের নেতারাই প্রশ্ন তুলেছেন তার অবস্থান নিয়ে। মেনন মন্ত্রী হলে এ ধরনের বক্তব্য দিতেন কি না আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সেই প্রশ্ন তুলেছেন।
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ক্যাসিনো কাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে রাশেদ খান মেননকে।
জোটের আরেক শরীক নেতা হাসানুল হক ইনু মনে করেন, এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে রাজনৈতিক সুবিধাবাদীর পরিচয় দিয়েছেন মেনন।
শনিবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে বরিশালে নিজ দল ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সম্মেলনে গেলো জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচন নিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন রাশেদ খান মেনন। এ সময় তিনি বলেন, বিগত নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রীসহ আমিও বিজয়ী হয়ে এমপি হয়েছি। এরপরও আমি সাক্ষী, বিগত নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারেননি। বিগত জাতীয়, উপজেলা এবং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট দিতে পারেনি দেশের মানুষ।
টানা তৃতীয় মেয়াদে আওয়ামী লীগের সরকার গঠন এবং বর্তমান সংসদের নয় মাস পর এমন বক্তব্য দিলেন বর্তমান মন্ত্রিসভায় ঠাঁই না পাওয়া এই ১৪ দল নেতা।
এ বিষয়ে ১৪ দল নেতা এবং জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেন, শুদ্ধি অভিযানের সময় এ ধরনের মন্তব্য রাজনৈতিক সুবিধাবাদীর পরিচয়।
তিনি বলেন, শেখ হাসিনা যখন নিজ দলে শুদ্ধি অভিযান চালাচ্ছেন তখন জোট সঙ্গীদের এমন বক্তব্য সুবিধাবাদীর পরিচয় বহন করে। আমি এটা সমর্থন করি না। 
এদিকে, রাশেদ খান মেনন কিভাবে সংসদ সদস্য হয়েছেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বলেন, ক্যাসিনো থেকে তার কমিশন পাওয়ার বিষয়ে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে যুবলীগ নেতারা যে তথ্য দিয়েছেন এ বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, তিনি চাঁদা নিতেন বলে খবর এসেছে। বিষয়গুলো তদন্ত হচ্ছে। মেনন সাহেব নিজেও এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। উনি কিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন সেটা কি বলেছেন তিনি?
এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরুল্লাহ বলেন, হতাশা থেকেই রাশেদ খান মেনন জাতীয় নির্বাচন নিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন। মন্ত্রী হলে রাশেদ খান মেনন নির্বাচন নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করতেন কি না এমন প্রশ্ন তুলেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।
সেতুমন্ত্রী বলেন, যখন নির্বাচন হলো তার পরপরই তো এসব বলতে পারতেন। আমার প্রশ্ন হলো, কেন এতদিন পর এই সময়ে এসে তিনি এসব বলছেন? মন্ত্রী হলে কি তিনি এ কথা বলতেন? 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ৭ সেপ্টেম্বর দলের যৌথ সভায় নিজ দল এবং অঙ্গ সংগঠনগুলোর ভেতর শুদ্ধি অভিযান চালানোর নির্দেশ দেন। এরপরই একে একে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরা পড়তে থাকেন যুবলীগ নেতা সম্রাট, খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া, জিকে শামীমসহ বেশ কয়েকজন নেতা।
এসময় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা রাশেদ খান মেনন ক্যাসিনো থেকে প্রতি মাসে চাঁদা পেতেন- এমন তথ্য দিয়েছেন বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে। এ বিষয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তাকে জিআজ্ঞাসাবাদ করতে পারেন বলেও বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop