ksrm

আন্তর্জাতিক সময়বরিসের চিঠিতেও থাকছে না ইইউ

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
ব্রেক্সিট বাস্তবায়নে সময় চেয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের চিঠি পাঠানোর পরও ব্রিটেন ৩১ অক্টোবরের মধ্যেই ইইউ ছাড়বে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। পার্লামেন্টে আবারও ব্রেক্সিট চুক্তি পাস করানোর জোর প্রচেষ্টা চালানো হবে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোমিনিক রাব। বিরোধী লেবার পার্টি এবার সমর্থন দেবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি। এ অবস্থায় ব্রেক্সিট পেছানোর বিষয়ে ইইউভুক্ত দেশগুলোর প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের ব্রেক্সিট বিষয়ক প্রধান আলোচক মিশেল বার্নিয়ার।
শনিবার পার্লামেন্টের বিশেষ অধিবেশনে ব্রেক্সিট পেছানোর জন্য বেশিরভাগ সদস্য তাদের ভোট দেন। এতে নির্ধারিত ৩১ অক্টোবরের মধ্যে ব্রেক্সিট কার্যকর হওয়া নিয়ে দোলাচল রয়েই যায়। এ নিয়ে হতাশ ব্রিটেনের বেশিরভাগ নাগরিক।
একজন নাগরিক বলেন, আমরা চিন্তিত। তাই পুনরায় গণভোটের দাবি জানাচ্ছি।
আরেকজন বলেন, ব্রেক্সিট নিয়ে আসলে কী হতে যাচ্ছে বুঝতে পারছি না। ভবিষ্যৎ এখনও অনিশ্চিত। কেন এতো দেরি করা হচ্ছে তার কোনো কারণ দেখছি না।
মাত্র ১৬ ভোটের ব্যবধানে হেরে পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট চুক্তি পাস করাতে ব্যর্থ হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ব্রেক্সিট কার্যকর হবে বলে আশাবাদী ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। পার্লামেন্টে ফের বরিস জনসন ব্রেক্সিট ইস্যু তুলবেন এবং স্পষ্ট মতামত জানতে চাইবেন। সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীরাও এ নিয়ে তাদের প্রত্যাশার কথা শোনান।
ডোমিনিক রাব বলেন, আগামী সপ্তাহে নতুন চুক্তিটি উত্থাপন করা হলে তা পাসের পক্ষে দরকারি সংখ্যক এমপি'র ভোট সরকার পাবেই। ইইউতে অনেক মানুষ আছেন, যারা ব্রেক্সিট পেছানো হলে খুব অস্বস্তি বোধ করবেন।
ব্রিটেন মন্ত্রী মাইকেল গভ বলেন, পার্লামেন্টের আবশ্যকতার জন্য ইউই'কে চিঠিটি পাঠানো হয়েছে। কিন্তু পার্লামেন্ট প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে পারেনি। পার্লামেন্ট সরকারের নীতি বা দৃঢ় প্রতিজ্ঞা পাল্টাতে পারে না। যুক্তরাজ্য ৩১ অক্টোবরেই ইইউ ত্যাগ করবে। আমাদের সে পথ আছে এবং আমরা তা করতেও সক্ষম।
বরিস জনসন ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্কের কাছে তিনটি চিঠি দিয়েছেন। এর একটিতে ব্রেক্সিট পিছিয়ে দেয়া ভুল হবে বলেও জানান তিনি। এ অবস্থায় পরবর্তী করণীয় ঠিক করতে ২৭টি ইইউভুক্ত দেশের প্রতিনিধির সঙ্গে বৈঠক করেছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের ব্রেক্সিট বিষয়ক প্রধান আলোচক মিশেল বার্নিয়ার।
ইউরোপীয় ইউনিয়নের ব্রেক্সিট বিষয়ক প্রধান আলোচক মিশেল বার্নিয়ার বলেন, আমাদের আলোচনা খুবই সীমিত সময়ের জন্য হয়েছে। ২৭ দেশের প্রতিনিধি এতে উপস্থিত ছিলেন। ব্রেক্সিট নিয়ে পরবর্তী করণীয় কী হবে তা আলোচনায় ছিল। প্রেসিডেন্ট টাস্ক এ নিয়ে বিস্তারিত জানাবেন।
এদিকে দ্রুত ব্রেক্সিট নিয়ে অচলাবস্থা কাটাতে তাগাদা দিয়েছে জার্মানি।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop