ksrm

আন্তর্জাতিক সময়ব্রিটেনে কনজারভেটিভ পার্টির প্রচারণা শুরু

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
আগামী জানুয়ারির মধ্যে ব্রেক্সিট বাস্তবায়নের অঙ্গীকারে ব্রিটেনে আগামী ১২ই ডিসেম্বরের সাধারণ নির্বাচন উপলক্ষে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করেছে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি। বুধবার, বার্মিংহামে নির্বাচনী সমাবেশে যোগ দিয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, জনগণকে দেয়া প্রতিশ্রুতির প্রায় পুরোটাই পূরণ হয়েছে তার ব্রেক্সিট প্রস্তাবনায়। অন্যদিকে, বিরোধী নেতা জেরেমি করবিন বলেছেন, ব্রিটেনজুড়ে একটি সত্যিকারের পরিবর্তন আনার লক্ষ্যেই নির্বাচনে অংশ নেবে তার দল। নির্বাচনে জয়ী হলে, তিনমাসের মধ্যে ব্রেক্সিট সংকট সমাধানেরও অঙ্গীকার করেন তিনি।
ব্রেক্সিট সংকটকে কেন্দ্র করে আগামী ১২ই ডিসেম্বরের আগাম নির্বাচন উপলক্ষে বুধবার লন্ডন থেকে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ডাউনিং স্ট্রিটের সামনে দেয়া ভাষণে তিনি বলেন, ব্রেক্সিট বাস্তবায়নে আগাম নির্বাচন ছাড়া কোনো বিকল্প ছিলো না। একইসঙ্গে বিরোধী আইনপ্রণেতাদের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ব্রেক্সিট বাস্তবায়নে কালক্ষেপণের অভিযোগও তোলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।
পরে, বার্মিংহামে এক নির্বাচনী সমাবেশে যোগ দিয়ে দলীয় সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বরিস জনসন বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার আগে জনগণকে দেয়া প্রতিশ্রুতির প্রায় পুরোটাই পূরণ হয়েছে তার প্রস্তাবিত ব্রেক্সিট চুক্তিতে, যেটি নিয়ে এরইমধ্যে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে সমঝোতায় পৌঁছেছে তার সরকার। বরিস বলেন, 'আমাদের এমন একটি পার্লামেন্ট রয়েছে যেটি প্রায় অকার্যকর। বিরোধী আইনপ্রণেতারা ইচ্ছাকৃতভাবে বারবার ব্রেক্সিট পিছিয়ে দিচ্ছেন। কিন্তু তাদেরকে বুঝতে হবে, ব্রেক্সিট চুক্তিটি প্রস্তুত হয়ে আছে। এটি প্রত্যাখ্যান করার আগে তাদের ভেবে দেখা উচিত এটি ঠিক হচ্ছে কিনা। কেননা, ব্রেক্সিটের বাইরেও আমাদের অনেককিছু করার আছে। ব্রেক্সিট বাস্তবায়নের পর উন্নয়নমূলক নানা প্রকল্প নিয়ে কাজ শুরু করবো আমারা।' 
অন্যদিকে, বরিস জনসনের আগ থেকেই নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করা বিরোধী নেতা জেরেমি করবিন বলেছেন, নির্বাচনে জয়ী হলে পরবর্তী তিন মাসের মধ্যে ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে ইইউ'র সঙ্গে পুনরায় সমঝোতায যাবে তার সরকার। নিজ শহর টেলফোর্ডে নির্বাচনী সমাবেশে যোগ দিয়ে তিনি আরও বলেন, দেশে একটি সত্যিকারের পরিবর্তন আনতেই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে লেবার পার্টি। করবিন বলেন, 'নির্বাচনে জয়ী হলে, ব্রেক্সিট নিয়ে ইইউ'র সঙ্গে সমঝোতায় যাবো আমরা। প্রয়োজনে ব্রেক্সিটের সময়সীমা আরও বাড়ানো হবে। বিষয়টি নিয়ে এরইমধ্যে আমরা ইইউ প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারাও প্রাথমিক সম্মতি জানিয়েছে। তবে, আমি মনে করি ব্রেক্সিট নিয়ে আরেকবার এদেশের জনগণের মতামত নেয়াটা জরুরি। আর সেলক্ষ্যে ব্রেক্সিট প্রশ্নে দ্বিতীয় গণভোট আয়োজনে পদক্ষেপ নেব আমরা।'
এদিকে, লেবার পার্টি এবং ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির পর আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছে অপর বিরোধী দল গ্রিন পার্টিও। বৃহস্পতিবার লন্ডন থেকে এই প্রচারণা শুরু করেন দলটির যুগ্ম নেতা সিয়ান বেরি। অন্যদিকে, ব্রিটেনের কামব্রিয়ায় আরেক বিরোধী দল ব্রেক্সিট পার্টির হয়ে প্রচারণা চালিয়েছেন দলটির নেতা নাইজেল ফারাজ। যদিও তিনি এতে অংশ নিচ্ছেন না। তার দল নির্বাচনে জয়ী হলে যে কোনো মূল্যে ব্রেক্সিট ঠেকানো হবে বলে আবারো অঙ্গীকার করেন নাইজেল।
ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে ইইউ-ব্রিটেন সমঝোতা হলেও, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর ব্রেক্সিট পরিকল্পনা পার্লামেন্ট আটকে দিলে, পূর্ব নির্ধারিত ৩১শে অক্টোবরের মধ্যে ইইউ ত্যাগে ব্যর্থ হন বরিস জনসন। পরবর্তীতে আগামী ৩১শে জানুয়ারি পর্যন্ত পুনরায় ব্রেক্সিটের সময়সীমা বাড়ানোর বিষয়ে জোট রাজি হলে, ১২ই ডিসেম্বর আগাম নির্বাচনের ঘোষণা দেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। 

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop