আন্তর্জাতিক সময়হংকংয়ে ব্যাপক সংঘর্ষ (ভিডিও)

সময় সংবাদ

fb tw
আন্দোলনকারীদের ওপর পুলিশের সরাসরি গুলিকে কেন্দ্র করে আবারো বিক্ষোভে উত্তাল হংকং। সোমবার (১১ নভেম্বর) সকালে হংকং আইল্যান্ডের পূর্বাঞ্চলে এ ঘটনার পর মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে পুলিশ ও আন্দোলনকারীরা। 
এদিন বেশ কয়েক জায়গায় পুলিশের সঙ্গে আন্দোনকারীদের ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ট্রেনে অগ্নিসংযোগের জেরে স্থগিত রয়েছে রেল সেবা।
স্থানীয় সময় সোমবার সকালে পূর্বনির্ধারিত বিক্ষোভকর্মসূচিতে এক আন্দোলনাকারীকে এভাবেই সরাসরি গুলি করে হংকং পুলিশ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের লাইভে প্রচারিত ভিডিওতে দেখা যায়, রাস্তা অবরোধের সময় এক আন্দোলনকারীর দিকে গুলি নিশানা করার পরপরই তাকে জাপটে ধরে এক পুলিশ অফিসার। 
মুখোশ পরিহিত আরেক আন্দোলনকারী এগিয়ে এলে একেবারে কাছ থেকে গুলি করে এবং আঘাত করেন ঐ পুলিশ।
ধস্তাধস্তির মধ্যেই ঐ পুলিশ অফিসারকে আরো দুই রাউন্ড গুলি করতে দেখা যায়। তবে এতে আর কেউ হতাহত হয়েছেন কি না নিশ্চিত হওয়া যায়নি। গুলিবিদ্ধ বিক্ষোভকারীকে হাসপাতালে নেয়ার পর তার অস্ত্রপাচার করা হয়েছে। তবে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। চীনের কাছে অপরাধী প্রত্যর্পণ আইনের বিরুদ্ধে গত জুন থেকে শুরু হওয়া আন্দোলনে এ নিয়ে এখন পর্যন্ত তিনবার আন্দোলনকারীদের ওপর গুলি চালিয়েছে পুলিশ।
আন্দোলনাকারীরা বলছে, বিনা উস্কানিতে সাই ওয়ান হু তে আজ দুওজনের ওপর গুলি চালিয়েছে পুলিশ। বিক্ষোভকারীরা কোন ধরনের সহিংস কর্মকাণ্ডে লিপ্ত না হলেও তাদের ওপর আক্রমণ করা হচ্ছে। গত পাঁচ মাস ধরে পুলিশ আমাদের ওপর অমানবিক নির্যাতন চালাচ্ছে। পুলিশের এর ধরনের আচরণ বন্ধে প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নেয়নি। তাই আমরা মনে করি এর বিরুদ্ধে আমাদের দাঁড়াতে হবে। একসঙ্গে আন্দোলন চালিয়ে যেতে আমরা হংকংবাসীকে উদ্বুদ্ধ করছি।
হংকং আইল্যান্ডের পূর্বাঞ্চল ছাড়াও অন্যান্য অংশেও গণতন্ত্রের দাবিতে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। সোমবার সকাল থেকেই রাজপথে অবস্থান নেন আন্দোলনকারীরা। বেশ কয়েক জায়গায় পুলিশের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের ব্যাপক সংঘর্ষের খবর জানিয়েছে গণমাধ্যম। চাইনিজ ইউনিভার্সিটিতে বিক্ষোভকারীদের ওপর রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পুলিশ। এছাড়া হংকং পলিটেকনিকে বিক্ষুব্ধদের ওপর কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করা হয়। আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে ক্লাস বর্জন করেছে বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।
হংকংয়ের বিভিন্ন প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেয় আন্দোলনকারীরা। একইসঙ্গে কোয়াই ফং রেল স্টেশনে একটি ট্রেনের ভেতর আগুন ধরিয়ে দেয় তারা। এরপর থেকে বেশ কয়েকটি রেল স্টেশনের ট্রেন সেবা স্থগিত রয়েছে।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop