বাংলার সময়জয়পুরহাটে মেয়রসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
জয়পুরহাটে দুর্নীতির অভিযোগে পৃথক দুটি মামলায় আক্কেলপুর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র গোলাম মাহফুজ চৌধূরীসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলাটি দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
বুধবার বিকেলে জয়পুরহাট সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে পৃথক ভাবে মামলা দায়ের করেন আক্কেলপুর উপজেলার মকিমপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত ছহির উদ্দীনের ছেলে মজিবর রহমান ও আক্কেলপুর উপজেলা শহরের বাসিন্দা মৃত ফয়েজ উদ্দীন আকন্দের ছেলে এবিএম এনায়েতুর রহমান আকন্দ।
মামলা সূত্রে জানা যায়, আক্কেলপুর পৌর কবরস্থানের সীমানা প্রাচীর গেট, পৌর ভবনের সীমানা প্রাচীরসহ গেট এবং পৌর পার্কের সীমানা প্রাচীরসহ পার্কের ভিতরে রাস্তা, ছাতাসহ বিভিন্ন নির্মান কাজের জন্য ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স রোজি চাউল কলের স্বত্তাধিকারী মজিবর রহমানের টেন্ডারপত্র দরদাতা হিসেবে সর্বনিম্ন হলেও মিথ্যা অজুহাতে পৌর মেয়র সেগুলো বাতিল করেন। পরবর্তীতে দরপত্র বেশী হওয়া স্বত্তেও অবৈধ অর্থের বিনিময়ে মেয়র তার নিয়ন্ত্রিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স সাহা ট্রেডার্স ও রিনা এন্টার প্রাইজের নামে গ্রহন করেন। এতে উল্লেখিত ৩টি নির্মান কাজে ২লাখ ৬০ হাজার ৫৭৩ টাকা সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তর ক্ষতিগ্রস্থ হয়।
অপর মামলা সূত্রে জানা গেছে, ফারুক আলম চৌধূরী নামে এক ব্যক্তি জাল সনদে আক্কেলপুর মহিলা ডিগ্রী কলেজে চাকুরী করছিলেন। এ ঘটনায় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে আহবায়ক করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হলে ২৪ জুন ফারুক আলম চৌধূরীর সনদপত্র জাল মর্মে তার গ্রহনকৃত সমস্ত সরকারী বেতন-ভাতাদী ফেরত প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের সুপারিশ করা হয়।
এদিকে ২০০৯ সালের ৮ জুলাই থেকে ফারুক আলম চৌধূরী কলেজে অনুপস্থিত থাকায় ওই বছরের ২৯ জুলাই তাকে চাকুরী থেকে বরখাস্ত করা হয়। বিষয়টি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানকে অভিযোগ আকারে জানালে তিনি ওই শিক্ষককে বেআইনী ভাবে ১ বছরের ছুটি দিয়ে ডিপ্লোমা কোর্স সম্পাদন করার নির্দেশ দেন প্রতিষ্ঠান প্রধানকে। আর এর বিরুদ্ধে তৎকালীন প্রতিষ্ঠান সভাপতি নাজমুল হুদা হালাকু বাদি হয়ে হাইকোর্ট ডিভিশনে একটি রিট পিটিশন করলে শিক্ষা বোর্ডের সিদ্ধান্ত স্থগিত হয় এবং স্থগিতাদেশ ২০১৫ সালের ৬ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত ১ বছরের জন্য বর্ধিত হয়।
কিন্তু এরই মাঝে আক্কেলপুর মহিলা ডিগ্রী কলেজের সভাপতি পৌর মেয়র গোলাম মাহফুজ চৌধূরী অবসর অধ্যক্ষ আতিকুর রহমান ও জামশেদ আলম নামে ২ ব্যক্তির সাথে যোগসাজসের মাধ্যমে বেআইনী ভাবে ২০১৪ সালের ২৩ জুলাই বেতন প্রদান করেন এবং অভিযুক্ত ফারুক আলম চৌধূরীর নিকট থেকে এমপিওর সরকারী টাকা আদায় করে সরকারী তহবিলে জমা না দিয়ে উল্লেখিত ব্যক্তিরা ভাগ বাটোয়ারা করে আত্মসাৎ করেন।     
মামলা দুটিতে আরো বলা হয়েছে, পৌর মেয়র দূর্নীতির মাধমে বর্তমান সরকারের বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎ করে জয়পুরহাট শহরে ২টি অট্রালিকা নির্মাণ করেছেন। এছাড়াও তার নিজের জন্য ও স্ত্রীর জন্য বিলাস বহুল দুটি গাড়ি কেনার পাশাপাশি কয়েক কোটি টাকার সম্পদ গড়ে তুলেছেন।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop