খেলার সময়বড় হার, তিন দিনও টানতে পারলো না বাংলাদেশ

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
ভারতের বিপক্ষে বড় হার দিয়েই টেস্ট সিরিজ শুরু করলো বাংলাদেশ। ইন্দোরে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট তিন দিনও খেলতে পারেনি মুমিনুল হকের দল, হেরেছে ইনিংস ও ১৩০ রানে।
দ্বিতীয় ইনিংসে বাজে শুরুর পর তৃতীয় দিনের শেষ সেশনটা শেষ হয় ভৌতিক ব্যাটিংয়ে। টপ অর্ডারের চরম ব্যর্থতার পর প্রতিরোধ গড়ে তোলেন মুশফিকুর রহিম। তবে ইনিংস ব্যবধানে হারের লজ্জা থেকে বাঁচাতে পারেননি। যোগ্য সঙ্গীও পাননি মুশি।
অভিজ্ঞ মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে জুটিটা বড় করতে পারেননি মুশি। ১৫ রানেই শামীর শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন মাহমুদুল্লাহ। এরপর লিটন ৩৫ এবং মিরাজ ৩৮ রানে ফেরার পর ব্যাটার কার্যত শেষই হয়ে যায় টাইগারদের। তাইজুলকে নিয়ে হারের ব্যবধান কমানোর চেষ্টা করছিলেন মুশফিকু। তবে ৪৩ বলে ৬ রান করা তাইজুল শামীর শর্ট ডেলিভারিতে ভড়কে যান। পরের ওভারেই রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বলে ফিরে যান ১৫০ বলে ৬৪ রান করা মুশফিক। আর তাতেই শেষ হয়ে যায় টাইগারদের প্রতিরোধ। উমেষ যাদভের বলে এবাদত হোসেন বোল্ড হলে ইনিংস ও ১৩০ রানে জয় পায় স্বাগতিকরা।
বোলারদের হতাশার পর প্রথম দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট হাতেও কোনো সুখবর ছিলো না। ভারতীয় পেসারদের তোপে তৃতীয় দিনেই ইনিংস ব্যবধানে হারের শঙ্কায় বাংলাদেশ।  উমেশ যাদভ, মোহাম্মদ শামীদের সামনে দাঁড়াতেই পারেননি সাদমান, কায়েস, মুমিনুলরা।
৩৪৩ রানে পিছিয়ে থেকে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমেই হুড়মুড়িয়ে উইকেট পড়তে থাকে টাইগারদের। ৬ রানে ইমরুল কায়েসকে বোল্ড করেন ফেরান উমেশ যাদভ। আরেক ওপেনার সাদমানের ব্যাট থেকেও আসে ৬ রান। তাকে বোল্ড করেন ইশান্ত শর্মা। মোহাম্মদ শামীর বলে লেগ বিফোরের শিকার হয়ে ফেরার আগে স্কোরবোর্ডে মাত্র ৭ রান যোগ করেন অধিনায়ক মুমিনুল হক।
এরপর ১৮ রান করা মোহাম্মদ মিঠুন শামীর দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হলে চরম চাপে পড়ে বাংলাদেশ। ইনিংস ব্যবধানে হারের শঙ্কা নিয়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করছেন দুই সিনিয়র ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম এবং মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।
এর আগে ৬ উইকেটে ৪৯৩ রান নিয়ে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে ভারত।
ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়ালের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে প্রথম ইনিংসে বড় লিড পায় পায় স্বাগতিকরা। ওপেনার রোহিত শর্মাকে আবু জায়েদ রাহি দ্রুতই ফেরালেও চেতশ্বর পূজারাকে সঙ্গে নিয়ে বড় জুটি গড়েন আগারওয়াল। ৫৪ রানে পূজারাকেও ফেরান রাহি। এরপর শূন্য রানে কোহলিকেও বোল্ড করেন রাহি। কিন্তু তাতেও চাপে ফেলা যায়নি তাদের। একপাশ আগলে দুর্দান্ত ব্যাটিং করতে থাকা আগারওয়ালকে পরে সঙ্গ দেন আজিঙ্কা রাহানে এবং রবিন্দ্র জাদেজা। দ্রুততম দ্বীশতক তুলে নেয়ার পর ২৪৩ রানে মেহেদী হাসানের বলে ক্যাচ ফিরে যান আগারওয়াল। আজিঙ্কা রাহাতে ৮৬ রানে থামলেও ৬০ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন রবিন্দ্র জাদেজা।
বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় মাত্র ১৫০ রানে। সেবারও দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন মুশফিক। আর কারো ব্যাট থেকেই উল্লেখযোগ্য রান আসেনি।
স্কোর: 
বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ১৫০/১০ মুশফিক ৪৩; শামী ২৭/৩, ইশান্ত ২০/২।
ভারত প্রথম ইনিংস: ৪৯৩/৬ (ডিক্লি.) আগারওয়াল ২৪৩, পূজারা ৫৪, রাহানে ৮৬, জাদেজা ৬০; আবু জায়েদ ১০৮/৪।
বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস: ২১৩/১০ মুশফিক ৬৪; শামী ৩১/৪।
ভারত ইনিংস এবং ১৩০ রানে জয়ী।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop