তথ্য প্রযুক্তির সময়৪০ লাখের মাইলফলকে সময়ের ইউটিউব চ্যানেল

সময় সংবাদ

fb tw
somoy
বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউবে সময় টেলিভিশনের চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা চার মিলিয়ন (৪০ লাখ) ছাড়িয়েছে। মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) রাত ৯টা ১৫ মিনিটে চার মিলিয়নের মাইলফলকে পৌঁছে যায় চ্যানেলটি।
যাত্রার মাত্র আড়াই বছরেই সাবস্ক্রাইবারের বিবেচনায় দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর মধ্যে শীর্ষস্থানে উঠে এসেছে চ্যানেলটি।
দেশের সংবাদভিত্তিক টেলিভিশন স্টেশনগুলোর ইউটিউব চ্যানেলের মধ্যে শীর্ষস্থানে রয়েছে সময় টেলিভিশন। স্যাটেলাইট টিভি দর্শকদের পাশাপাশি ডিজিটাল মাধ্যমের দর্শকদের কথা চিন্তা করে ‘সময় ডিজিটাল’ নামে আলাদা একটি শাখার সূচনা করে সময় টিভি। সময় টেলিভিশনের ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম থেকে প্রতিমাসে প্রায় ২০ কোটি মানুষের কাছে তথ্য পৌঁছায়।
যাত্রার তিন মাসের মাথায় ২০১৮ সালের মার্চে এক লাখ সাবস্ক্রাইবার ছাড়িয়ে ‘সিলভার বাটন অ্যাওয়ার্ড’ অর্জন করে এই চ্যানেলটি। এরপর তথ্যপিপাসুদের তুমুল সাড়ায় এক বছরের মধ্যেই ছাড়িয়ে যায় ২০ লাখ সাবস্ক্রাইবার। চলতি বছরের ১৪ জুন এ সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়ায়।
এর আগে সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে ইউটিউব থেকে সিলভার বাটন অ্যাওয়ার্ড ও পরে গোল্ড বাটন অ্যাওয়ার্ডও অর্জন করেছে চ্যানেলটি। পাশাপাশি দ্রুততম সময়ে অধিক সাবস্ক্রাইবার ও দর্শকদের কাছে গ্রহণযোগ্যতার জন্যও প্রশংসা কুড়িয়েছে ইউটিউবের কাছ থেকে।
সময় টেলিভিশনের তথ্য প্রযুক্তি ও সম্প্রচার প্রধান সালাউদ্দিন সেলিম বলেন, একটা চ্যালেঞ্জ যখন লক্ষ্য অতিক্রম করে সফল থেকে সফলতর হতে থাকে। তখন সেই আনন্দটার ওজনটা একটু অন্যরকমই হয়! সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে দেশের শীর্ষস্থানীয় ইউটিউব চ্যানেলের তালিকায় উঠে আসা ছিল অনেক বড় একটা মাইলফলক। একটা বিষয় অনেকেই হয়তো জানে না, সেটা হলো- শুধুমাত্র নিউজ কন্টেন্ট দিয়ে একটা ইউটিউব চ্যানেল শীর্ষে নিয়ে আসা কোনো সহজ ব্যাপার নয়। কারণ ইউটিউব নিজেই নিউজের বিপক্ষে এবং এমনকি ইউটিউবে যারা বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকেন তারাও নিউজ জাতীয় কন্টেন্টের ওপর তাদের বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের প্রতি অনীহা প্রকাশ করে থাকেন। অর্থ্যাৎ ইউটিউবের ভাষায় নিউজ হচ্ছে নিম্ন ক্যাটাগরির কন্টেন্ট, তাদের মতে, ইউটিউবে দর্শক আসবে মজা পেতে, বিনোদিত হতে কিংবা শিখতে কিন্তু কাঁদতে নয়! অথচ আমাদের দেশের সেই কাঁদানো সংবাদ পরিবেশন করেও আজ আমরা বাংলাদেশের ২য় শীর্ষস্থানীয় ইউটিউব চ্যানেল।
এই প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ আরো বলেন,  ইউটিউবের ভাষায় গোল্ডেন কন্টেন্ট বলতে নাটক, সিনেমা, কমেডি, টেকনোলজি, স্বাস্থ্য, ইত্যাদিকে বোঝায়। তাই এইসব কন্টেন্টের ওপর দামি বিজ্ঞাপন দেওয়ার ক্ষেত্রেও ইউটিউব বেশ স্বজনপ্রীতি করে থাকে। তারপরেও আমাদের এই নিউজ নামক নিম্ন ক্যাটাগরির কন্টেন্ট দিয়েই দেশে এক ধরনের মাইলফলক তৈরি করেছি, যা হয়তো ইউটিউব নিজেরাও কখনো কল্পনা করে নাই। শুধু মাইলফলক নয়, দেশের প্রত্যেকটি মিডিয়া এখন এটা নিয়ে ভাবে - কেউ আমাদের প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে, কেউ আবার আমাদের দেখে উৎসাহিত হয়ে। যাই হোক, এখন সময় ডিজিটাল নিয়ে আলোচনা হয় বিভিন্ন জায়গায় এটাই সময়ের স্বার্থকতা।
ভালোবাসা ও সহযোগিতায় অর্জিত সময়ের এই সাফল্যের সঙ্গে ভবিষ্যতেও দর্শকরা যুক্ত থাকবেন বলে আশা করে সময় টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ। সময়ের সঙ্গে থাকতে সাবস্ক্রাইব করুন সময় টিভি’র ইউটিউব চ্যানেলগুলোতে:
 
১. সময় টিভি’র সব নিউজ দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন :
SOMOY TV: https://www.youtube.com/somoytvnetupdate
২. সময় টিভি’র প্রতি ঘণ্টার বুলেটিন ও লাইভ দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন :
SOMOYTV Bulletin : https://www.youtube.com/somoytvbulletin

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop