ksrm

খেলার সময়'এই মুহূর্তে হাথুরুর প্রস্থান আমাদের পীড়া দিবে'

খেলার সময় ডেস্ক

fb tw
somoy
২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য বৃহৎ পরিসরে প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ। এরই ধারাবাহিকতায় প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি। তবে হুট করেই পদত্যাগপত্র দিয়ে বসেন হাথুরুসিংহে। সদ্য শেষ হওয়া দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের সময়ই নাকি ইস্তফাপত্র দেন তিনি যদিও বিষয়টি জানা গেছে ঘটনার প্রায় চার সপ্তাহ পর।
এই মুহূর্তে কোচের পদত্যাগ নিঃসন্দেহে চিন্তায় ফেলবে বিসিবি কর্তাদের। নতুন করে ভাবতে হবে অনেক কিছুই। সবমিলিয়ে হাথুরুর এমন অপেশাদারি সিদ্ধান্তে ক্ষতি হবে বাংলাদেশের, এমনটাই মনে করেন বিসিবির সাবেক প্রধান নির্বাচক ফারুক আহমেদ।
গতবছর দল নির্বাচন পলিসি নিয়ে বিসিবির সঙ্গে দ্বন্দ্বের জেরে পদত্যাগ করেন ফারুক আহমেদ। তার মতে, ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ নিয়ে পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ। এমন সময় হাথুরুসিংহের পদত্যাগ অপেশাদার সিদ্ধান্ত।
'এই সময়ে ইস্তফা দেয়াটা আমার কাছে ভালো মনে হয়নি। সফলতা, সমালোচনা এবং মিডিয়া- এগুলোর মধ্যেই কাজ করতে হয়। দল যখন ভালো করবে তখন আপনি মূল্যায়িত হবেন আবার দল খারাপ করলে আপনি সমালোচিত হবেন।'
ফারুকের মতে, তিনি যা চেয়েছেন বিসিবির কাছে থেকে প্রায় সবটাই পেয়েছেন। তারপরেও এভাবে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত একেবারেই অনুচিত।
'তাঁর পদত্যাগপত্র দেয়াটা পেশাদারী ছিলো না। ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত তাঁর সঙ্গে চুক্তি অতএব তার ইচ্ছার কথা বোর্ডকে আগেই জানানো উচিৎ ছিলো। বিসিবির সঙ্গে চুক্তি তাকে বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে বেশি বেতনের একজন কোচ বানিয়েছে এবং তাকে ক্ষমতাও দেয়া হয়েছে।'
তাঁর মতো, অসাধারণ কিছু সফলতার মধ্যে বাংলাদেশ একটা সিরিজ খারাপ করেছে। দলের এমন একটা খারাপ সফরের সময় তাঁর মতো শক্তিশালী ব্যক্তিত্বের একজন লোকের এভাবে চলে যাওয়াটা অপ্রত্যাশিত।
এদিকে, ২০১৪ সালে দায়িত্ব পাওয়ার সময় কোচ হিসেবে হাথুরুসিংহের নাম প্রস্তাব করেছিলেন বিসিবির পরিচালক এবং জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন। দু'জনের সম্পর্কটাও দারুণ। অথচ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কয়েকদিন একসঙ্গে থাকলেও হাথুরুসিংহের এমন পরিকল্পনার কথা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি সুজন।
'এটা শুনার পর আমি বিস্মিত হয়েছি। দক্ষিণ আফ্রিকায় আমি পাঁচ দিন ছিলাম। এসময়ে আমাদের এধরণের কোন কথাই হয়নি। সে পদত্যাগ করেছে শুনেছি তবে কেন, সেটি জানি না। গত আড়াই বছর একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে তার সঙ্গে দারুণ একটা সম্পর্ক তৈরি হয়েছে। তারপরেও সে আমাকে কিছুই বলেনি।'
সুজনের মতে এ মুহূর্তে তাঁর চলে যাওয়া বাংলাদেশের জন্য কষ্টকর হবে।
'গতরাতে তাঁর ফোন বন্ধ ছিলো। আশা করি, তাঁর সঙ্গে দ্রুতই যোগাযোগ করতে পারবো। সে ইতিবাচক ব্যক্তি। আশা করি, তাঁর কি হয়েছে সেটা জানতে পারবো। দক্ষিণ আফ্রিকায় আমাদের পারফরম্যান্স ছাড়া বাকি সবকিছুই ঠিক ছিলো। আমাদের সমনে একটি গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ আছে (শ্রীলঙ্কা সিরিজ)- তো এই মুহূর্তে তাঁর প্রস্থান আমাদের পীড়া দিবে।'
#ইএসপিএন ক্রিকইনফো
/এসএম

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop