ksrm

ফুটবল বিশ্বকাপবিশ্বকাপ শুরুর আগেই একের পর এক ট্রাজেডি!

খেলার সময় ডেস্ক

fb tw
somoy
থাকবে না চারবারের বিশ্বকাপ জয়ী আজ্জুরিরা। দেখা মিলবে না কমলা রঙের টোটাল ফুটবল। গ্যালারি মাতবে না চিলিয়ানদের বুনো উল্লাসে!। হ্যাঁ, ৩২ দলের বিশ্বকাপে জায়গা হয়নি ইতালি, নেদারল্যান্ড ও চিলির মতো পরাশক্তিদের।
 
ইতোমধ্যে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করে ফেলেছে ২৯টি দল। বিশ্ব আসরে যেমন সুযোগ মিলেছে আন্ডারডগদের তেমনি বাদ পড়েছে হট ফেভারিটরা। রাশিয়া বিশ্বকাপের আগেই তাই আলোচনার খোরাক। শুরুর আগেই কি তবে রং হারালো? সৌভাগ্য, দুর্ভাগ্যের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে চোখ বোলানো যাক।
প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চ তৈরি করার সুযোগ পেয়েছে রাশিয়া। বিশ্বের অন্যতম মহাশক্তিধর দেশটির বিশ্বকাপ আয়োজনে কমতিও নেই। নতুন নতুন স্টেডিয়াম তৈরি হচ্ছে, আয়োজনে নতুনত্ব রাখার চেষ্টা চলছে প্রতিনিয়তই। সবমিলিয়ে পুরোদমে চলছে ক্রীড়াজগতের অন্যতম আকর্ষণীয় টুর্নামেন্টের।
তবে শুরুর আগেই রাশান ফুটবল সমর্থকদের খানিকটা হোঁচটই খেতে হচ্ছে। কেবল দেশটিরই নয়, তাবৎ বিশ্বের সব ফুটবল সমর্থকই নিশ্চয়ই হতাশ হবেন। আসন্ন বিশ্বকাপে যে থাকছেনা চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইতালি, দুইবারের রানার্সআপ নেদারল্যান্ড কিংবা ল্যাটিন আমেরিকা জায়ান্ট চিলি। একবার ভাবুন তো, ভ্যান ফার্সি, রোবেন, ভিদাল, সানচেজ কিংবা বুফন ডি রসিদের মতো তারকারা নেই বিশ্ব ফুটবলের মঞ্চে। এও সম্ভব?
কেউ কি ভেবেছিল? না, ভাবতে পারেনি খোদ সোশ্যাল নেটওয়ার্কগুলোও। বিশ্বজুড়ে এরইমধ্যে উন্মাদনা তৈরী করা বিশ্বকাপের যেসব প্রমোশনাল হয়েছে সেখানেও কিন্তু বাদ দেয়া হয়নি ইতালি কিংবা হল্যান্ডের মতো দলকে। অথচ নিয়তি ঠিকই ছিটকে দিল তাদের।
যুগ খানেক আগের মতো অতোটা পাওয়ার হাউস ছিলনা এবার আজ্জুরিরা এটি সত্য। ২০০৬ সালে বিশ্বকাপ জেতার পরের দুই আসরেই যেমন তারা ছিটকে পড়ে প্রথম রাউন্ড থেকে। গেল ইউরোতেও শেষ চারে উঠতে ব্যর্থ ইতালিয়ানরা। তাই বলে একেবারে ঠাঁই মিলবে না বিশ্বকাপে। প্রিয় নীল জার্সিটা বিষাদের রং হয়ে থাকবে?
কিংবা টোটাল ফুটবলের জনক দেশটি? ২০১০ এর রানার্সআপ আর গেল আসরের শেষ চারে খেলা নেদারল্যান্ডের মেলেনি টিকিট। কমলা রঙের ঢেউ যেমন পড়বে না গ্যালারিজুড়ে তেমনি রোবেন, ভ্যান ফার্সিদের বড় মঞ্চে দেখার সবশেষ সুযোগ থেকেও বঞ্চিত হতে হলো গোটা বিশ্বকে।
পরপর দুটি কোপা আমেরিকা থেকে হট ফেভারিট আর্জেন্টিনাকে খালি হাতে ফিরিয়ে চ্যাম্পিয়ন চিলি। মেসি-হিগুয়েনদের হতাশার অনলে পোড়ানো গল্পগাঁথা তৈরি করা সানচেজ-ভিদালরা নেই সবচে বড় আসরে।
সবমিলিয়ে গ্রহের ক্রীড়াজগতকে হয়তো আরেকবার ভাবার সুযোগ করে দিল বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। খেলাধুলায় দক্ষতা, শিল্পের সঙ্গে ভাগ্যের অঙ্গাঙ্গী সম্পর্কের কথা। তবু দিনশেষে রূঢ় বাস্তবতাকে হয়তো হারতে হবে আবেগের কাছে।
/এসএম

আরও পড়ুন

'আমি নিজের জন্য না, ইতালির জন্য দুঃখিত'ইতালির কান্না

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop