ksrm

খেলার সময়শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে সাকিবকে হারালেন মাশরাফি

খেলার সময় ডেস্ক

fb tw
somoy
মাশরাফি-সাকিব দ্বৈরথে জিতলেন ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাস্টিক ঐ মাশরাফি। শ্বাসরুদ্ধর ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসকে ৩ রানে হারিয়েছে রংপুর রাইডার্স। টসে হেরে শুরুতে ব্যাট করতে নেমে ১৪২ রানে অলআউট হয় মাশরাফি বাহিনী। জবাবে ১৩৯ রানে গুটিয়ে যায় সাকিবের ঢাকা। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হারলো ঢাকা। অন্যদিকে শুরুতে টানা হারলেও, পরপর ২য় ম্যাচে জিতে জয়ের ধারায় ফিরলো রংপুর।
শ্বাসরুদ্ধর ম্যাচ বলবেন! প্রতিটি বলেই নাটকীয় মোড় নিয়েছিলো। শেষ ওভারে প্রয়োজন ১০ রান। উইকেটে কাইরোন পোলার্ড। পরপর দুই বলে রান নেয়ার সুযোগ থাকলেও নিলেন না। অপর প্রান্তে মোহাম্মেদ আমের। তৃতীয় বলে উড়িয়ে মেরে ফিকে হয়ে আসা স্বপ্নে আবারো রং ছড়ালেন পোলার্ড। আর এতেই স্নায়ুচাপে পড়ে গেলেন বোলার থিসারা পেরেরা। অধিনায়ক মাশরাফি সাহস জোগালেন। পঞ্চম বলে বোল্ড পোলার্ড। শেষ বলে দরকার ৪ রান। আবু হায়দার রনিকে গোলা ছুঁড়লেন পেরেরা। ফলাফল হেভিওয়েট ম্যাচে নাটকীয় জয় রংপুরের।
এর আগে ১৪৩ রানের টার্গেটকে যেন দুর-বহুদূরের পথ বানিয়ে ফেললেন নারাইন-সাকিবরা। প্রথম ওভারেই মাশরাফির আঘাত। নারাইন ফিরলেন গোল্ডেন ডাক মেরে।
আসরে প্রথমবারের মতো ওয়ানডাউনে সাকিব। তবে টিকতে পারলেন না। জহুরুল-লুইসে চড়ে ম্যাচে ফেরার চেষ্টা ঢাকার। তবে আবারো গাজী-মাশরাফি জুটির আঘাতে কাটা পড়লেন দুইজনই।
গেল ম্যাচে না থাকা আফ্রিদি এলেন ৭ নাম্বারে। নিজের স্বভাবসুলভ ইনিংস খেললেন। তবে থামলেন ১৫ বলে ২১ রানে। বুম বুম ম্যাচ জেতাতে পারলেন না। যেমনটি পারেননি মেহেদী মারুফ, নাদিফ চৌধুরী কিংবা কাইরন পোলার্ডরা।
রংপুরের ইনিংসটাও নাটকীয়তায় ভরপুর। ইনিংসের ২য় ওভারে গেইলের সহজ ক্যাচটা হাতছাড়া করলেন ঢাকা ডায়নামাইটসের পেসার আবু হায়দার রনি। সেই গেইল থামলেন ৫১ রান করে। বল খেললেন ২৮টি। সীমানার বাইরে উড়িয়ে মেরেছেন চারবার। অবশ্য ফিরেছেনও ওই আবু হায়দারের হাতে ক্যাচ দিয়ে। আর তাই লোকাল বয় এর উদযাপনটাও হলো বাঁধনহারা।
অবশ্য গেইলের ওই এক বিধ্বংসী ইনিংস ছাড়া বলার মতো আর কিছুই নেই রংপুর রাইডার্সের পুরো ইনিংসে। ওপেনার ম্যাককালামকে দিয়ে শুরু।
মিথুন অনেকক্ষণ থাকার চেষ্টা করলেন। তার ২৬ বলে ২২ রানের ইনিংসটা ঠিক টি-টোয়েন্টি ধাঁচের হলোনা। আরেকবার পারলেননা শাহরিয়ার নাফিসও।
মিডল অর্ডারে উঠে এলেন মাশরাফি। আমা জাগিয়েও হতাশ করেছেন। এরপর বোপারা- পেরেরা-জিয়াউর, সবাই যেন ব্যাতিব্যস্ত সাজঘরে ফিরতে। অবশ্য রাস্তাটা দেখিয়ে দিলেন সাকিব আল হাসান। শেষ ওভারে পাঁচ বলে তুলে নেন ৪ উইকেট। রংপুর তাই থামে ১৪২ রানের ঘরে। আসরের সেরা বোলিং ফিগার সাকিবের ১৬ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট।
/এসএম

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
ভাইরাল
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
Latest News
আপনিও লিখুন
ছবি ভিডিও টিভি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop