ভ্রমণমাছের রাজ্য ইন্দোনেশিয়ার বাটাম দ্বীপ

কমল দে

fb tw
চীন সাগরের ২২ শ’ দ্বীপের সমন্বয়ে গঠিত ইন্দেনেশিয়ার অন্যতম পর্যটন স্থান বাটাম। স্থানীয় ভাষায় যার নাম কোটামাড্ডা। ইন্দেনেশিয়ার অষ্টম বৃহত্তম এই দ্বীপের অন্যতম আকর্ষণ মাছ খাওয়া। সাগরের তীর ঘেঁষে পানির উপরেই তৈরি করা হয়েছে চমৎকার সব বাঁশ ও কাঠের ঘর। নীচে ঘুরে বেড়াচ্ছে নানা রকমের মাছ। আর সেই জীবন্ত মাছ খাওয়ার স্বাদ নিতে ছুটে আসেন পর্যটকেরা এখানে।
এক স্থানীয় জানান, ‘প্রতিদিন মালয়শিয়া, চীন, বাংলাদেশ থেকে প্রায় এক হাজার পর্যটক এখানে আসে। তবে শনিবার প্রায় আড়াই হাজার পর্যটক এখানে আসে।’
সাগরের পানিতে ঘুরে বেড়ানো মাছ ধরার জন্য পর্যটকেরাই পছন্দ করে দেবেন। আর বিচিত্র এক শব্দ করে মাছগুলোকে ডেকে আনে রেস্টুরেন্টের কর্মচারীরা। বিশেষ বরশির মাধ্যমে মাছ ধরে ওজন করে পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে রান্নাঘরে। পর্যটকদের পছন্দ অনুযায়ী তৈরি করে দেয়া হয় মাছের হরেক রকম পদ। 
দামও তেমন বেশি নয়। একেকটি মাছের পদ ইন্দেনেশিয়ার মুদ্রায় এক লাখ রুপিয়া হলেও বাংলাদেশি টাকায় ১ হাজারেরও কম।  
এক পর্যটক বললেন, ‘এটি দারুণ একটি উদ্যোগ। ইচ্ছেমতো মাছ পছন্দ করে খাবারের জন্য অর্ডার দেয়া যায়। দামও সাধ্যের মধ্যে আছে।’
মাছ খেয়ে দারুণ খুশি আরেক পর্যটক, ‘মাছগুলো তাজা, আর খেতে খুবই সুস্বাদু।’
রেস্টুরেন্ট মালিক জানালেন, ‘যারা মাছ ধরতে ও খেতে আসে তারা অধিকাংশই সিঙ্গাপুরের। বাইরের পর্যটকও আছে।’
সাগরকে ব্যবহার করে পর্যটক আকর্ষণে ইন্দোনেশিয়ার একাধিক পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তুললেও ব্যাপক সম্ভাবনা সত্ত্বেও সুযোগ কাজে লাগাতে পারছে না সাগর ও নদীর দেশ বাংলাদেশ।
ইন্দেনেশিয়ায় গুরতে যাওয়া এক বাংরঅদেশি বললেন, ‘দীপের মধ্যে সাগরের পানি প্রবেশ করিয়ে সেই পানিতে তারা মাছকে লালন পালন করে বড় করে। সেই জীবন্ত মাছটাকে পর্যটকদের সামনে উপস্থাপন করে।’
ইন্দোনেশিয়ার মূল ভূখণ্ড ছাড়াও প্রতিবেশী দেশ মালয়শিয়া ও সিঙ্গাপুরের পর্যটকেরা খুব সহজেই ফেরিতে চড়ে বাটাম দ্বীপে আসতে পারে। সময় লাগে ৩৫-৪০ মিনিট। আর ফেরি থেকে নেমেই কয়েক মিনিটে পাওয়া যায় অ্যারাইভাল ভিসা।
  

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop