লাইফস্টাইলকার বেশি আবেগ, ছেলেদের না মেয়েদের!

ওয়েব ডেস্ক

fb tw
somoy
অবশেষে সুইৎজারল্যান্ডের বাসেল ইউনিভার্সিটির গবেষকরা একটি পরীক্ষার মাধ্যমে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন মহিলাদের মতো পুরুষদের চোখে সহজে জল আসে না।  কিন্তু কেন? সেই উত্তর অবশেষে পাওয়া গেল। 
এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, পুরুষ ও মহিলাদের মস্তিষ্কে কিছু পার্থক্য থাকে।  যার জন্য পুরুষরা মহিলাদের মতো অনুভূতিহীন ও আবেগপ্রবণ হন না। 
কয়েকজন পুরুষের মধ্যে কোনও আবেগ বা অন্যের প্রতি শ্রদ্ধাও থাকে না।  বিজ্ঞানের ভাষায়, এদের মধ্যে ক্যালাস-আনইমোশনাল ট্রেট রয়েছে।  অর্থাৎ এদের মস্তিষ্কের গঠন অন্যদের থেকে ভিন্ন।
সুইৎজারল্যান্ডের বাসেল ইউনিভার্সিটির গবেষকরা আরও বেশ কিছু উত্তর খুজে পেয়েছেন।  পুরুষদের একটা বড় অংশের মধ্যে মহিলাদের মতো সহমর্মিতা থাকে না।  অন্যের দুঃখে সহানুভূতিশীল হওয়ার ক্ষেত্রেও পুরুষদের থেকে মহিলারা এগিয়ে।  বিবেকবোধেরও বিকাশ অনেক কম হয় পুরুষদের। পুরুষদের এই ধরনের প্রবণতাকে ক্যালস-আনইমোশনাল ট্রেট বলা হয়। 
বাড়ন্ত ছেলেদের মধ্যে তুলনামূলক ভাবে অ্যান্টেরিয়র ইনসুলা বা ধূষর কোষের সংখ্যা বেশি থাকে।  মস্তিষ্কে এই ধূষর কোষের মাধ্যমেই অন্যের দুঃখে মানুষ সহানুভূতিশীল হয়।  বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরুষদের মস্তিষ্কে এই ধূষর কোষের সংখ্যা কমতে থাকে।  মূলত মস্তিষ্কের গঠনই নির্ধারণ করে সেই মানুষটির আবেগ, অনুভূতি কেমন হবে। 
সূত্রঃ এবেলা।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop