খেলার সময়বিসিএলে'র দুইটি ম্যাচই ড্র দিয়ে শেষ

ওয়েব ডেস্ক

fb tw
দ্বিতীয় রাউন্ডে জয়ের মুখ দেখলো না কোন দলই। বিকেএসপিতে দক্ষিণাঞ্চল এবং মধ্যাঞ্চলের মধ্যকার ম্যাচ শেষ হয়েছে ড্র মেনেই। এ ম্যাচে দারুণ সেঞ্চুরি করে ম্যাচ সেরা হয়েছেন নুরুল হাসান সোহান। সিলেটে পূর্বাঞ্চল এবং উত্তরাঞ্চলের মধ্যকার ম্যাচটিও ড্র হয়েছে। সেঞ্চুরি করে ম্যাচ সেরা হয়েছেন মুমিনুল হক।
বিকেএসপিতে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে উত্তাপহীন ম্যাচে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে দু'দল। চতুর্থ দিনে ২ উইকেটে ৩১৩ রান নিয়ে ব্যাট করতে নামে আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান রকিবুল ইসলাম ও মেহরাব জুনিয়র। বিকেএসপির ফ্ল্যাট উইকেটে অবশ্য শেষ দিনে কোন রান যোগ না করেই ৮২ রানে ফেরেন রকিবুল। তবে সতীর্থ ফিরে গেলেও এক প্রান্ত ধরে খেলতে থাকেন আগের দিনে ৪২ রানে অপরাজিত থাকা এনামুল জুনিয়র। পাঁচে আসা তাইবুর সঙ্গ দেয়ার চেষ্টা করেন তাকে।
তবে মাত্র ১৩ রান করে মোসাদ্দেকের শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তাইবুর। দেখে শুনে খেলেন এনামুল। তুলে নেন প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে ২৯তম ফিফটি। এনামুল ৭৬ রানে অভিজ্ঞ আব্দুর রাজ্জাকের শিকারে পরিণত হয়ে মাঠ ছাড়েন।
পরে আসা তানভীর হায়দার আর নাদিফ চৌধুরী মিলে দলকে বড় স্কোর উপহার দেন। ৪০ রানে সাজ ঘরে ফেরেন নাদিফ। আর ৭৭ রানের দারুণ ইনিংস খেলে মধ্যাঞ্চলকে ৫০৫ রানের সংগ্রহ এনে দেনে তানভীর হায়দার। আব্দুর রাজ্জাক ৪টি এবং মোসাদ্দেক সৈকত নেন ৩টি উইকেট।
৫৭ রানে পিছিয়ে থেকে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে দক্ষিণাঞ্চল। অবশ্য সৌম্য সরকার এবং জিয়াউর রহমানের উদ্বোধনী জুটি স্থায়ী হয়নি বেশিক্ষণ। সৌম্য ১৮ রান করে ফেরেন তানভীর হায়দারের শিকার হয়ে। রান আউটের ফাঁদে পরে ফেরেন তুষার ইমরান। চতুর্থ দিনের খেলা শেষ হলে ড্র মেনেই মাঠ চাড়তে হয় দু'দলকে। দারুণ এক শতক করার উপহার হিসেবে ম্যাচ সেরা হয়েছেন নুরুল হাসান সোহান।
পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে দ্বিতীয় ইনিংসে ৮ উইকেটে ২৭৩ রান নিয়ে চতুর্থ দিন শুরু করে উত্তরাঞ্চল। তৃতীয় দিন অপরাজিত থাকা দুই ব্যাটসম্যান তাইজুল এবং ফরহাদ রেজা এদিন অবশ্য বেশি দূর এগুতে পারেননি। মাত্র ১১ রান যোগ করে ২৮৪ রানে অলআউট হয় উত্তরাঞ্চল। ফরহাদ রেজা ৩৩ এবং তাইজুল করেন ৫ রান। ফলে পূর্বাঞ্চলের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৬১ রান।
অবশ্য মমিনুলের সেঞ্চুরিতেও ড্র এড়াতে পারেনি পূর্বাঞ্চল। ২৬১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে কিছুটা দ্রুত খেলতে থাকে তারা। তবে তাইজুলের ঘূর্ণিতে বেশি দূর এগুতে পারেনি উদ্বোধনী জুটি।
তবে মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন মমিনুল হক। আগের ম্যাচের ডাবল সেঞ্চুরির পর এ ম্যাচে হাঁকিয়েছেন প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারের ১২তম সেঞ্চুরি। ১০৭ রানে এই বাঁহাতি ফিরে গেলে আর কেউ হাল ধরতে পারেনি দলের। ৬ উইকেটে ২০২ রানে দিনের খেলা শেষ করে পূর্বাঞ্চল। ফলে ড্র মেনেই শেষ হলো এ ম্যাচও।

আরও সংবাদ

বাংলার সময়
বাণিজ্য সময়
বিনোদনের সময়
খেলার সময়
আন্তর্জাতিক সময়
মহানগর সময়
অন্যান্য সময়
তথ্য প্রযুক্তির সময়
রাশিফল
লাইফস্টাইল
ভ্রমণ
প্রবাসে সময়
সাক্ষাৎকার
মুক্তকথা
বাণিজ্য মেলা
রসুই ঘর
বিশ্বকাপ গ্যালারি
বইমেলা
উত্তাল মার্চ
সিটি নির্বাচন
শেয়ার বাজার
জাতীয় বাজেট
বিপিএল
শিক্ষা সময়
ভোটের হাওয়া
স্বাস্থ্য
ধর্ম
চাকরি
পশ্চিমবঙ্গ
ফুটবল বিশ্বকাপ
সংবাদ প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ সংবাদ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
GoTop